কদিন পরই কোরবানির ঈদ। এই ঈদের উৎসব যেন আসে আগেভাগেই। অনেকের চিন্তাভাবনা প্রস্তুতি থাকে কোরবানির পশু কেনাকে ঘিরে। তবে ব্যস্ত নগরীর মানুষের জীবনকে সহজ করে দিতে আপনার ঘরেই নিয়ে এসেছে হাট। পরিবারের সব সদস্যকে দেখিয়েই কিনতে পারবেন এবারের কোরবানির পশুটি!

নিশ্চয়ই বিশ্বাস হচ্ছে না! এমন অবিশ্বাস্য কাজটি সাধন করেছে ভার্চুয়াল বাজার। পুরো গরুর হাটকে নিয়ে এসেছে আপনার হাতের মুঠোয়। যানজট, দালালদের খপ্পর, বাজার অস্থিরতা—কোনো কিছুই আর আপনাকে দেখতে হবে না। এসব ঝক্কি-ঝামেলা এড়িয়ে কোরবানির পশু কেনা যাচ্ছে অনলাইনে। শুধু গরু-ছাগলই নয়, আরব দেশের উটও মিলবে অনলাইনে। সব ধরনের পসরা নিয়ে জমে উঠেছে ভার্চুয়াল হাটগুলো। কেনাকাটার কাজ শেষ হলে ক্রেতার ঠিকানায় পশু পৌঁছে দেওয়ার কাজটিও করে দিচ্ছে ইন্টারনেটভিত্তিক প্রতিষ্ঠানগুলো।

এরই মধ্যে অনলাইনে পশু কেনাবেচাও বেশ জমে উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকেও পিছিয়ে নেই এই কেনাবেচা। জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস বিক্রয় ডটকম, এখনি ডটকম ছাড়াও অনেক প্রতিষ্ঠান এই বাজার নিয়ে বসেছে। কোরবানির পশু বিক্রির জন্য খোলা হয়েছে ওয়েবসাইট। যাঁরা হাটের ভিড় পছন্দ করেন না, তাঁদের জন্য অনলাইনে কেনাকাটা দিচ্ছে দারুণ এই সুযোগ।


ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে অনলাইনে হিড়িক পড়েছে কোরবানির পশু ক্রয়ে। যেখানে যে কেউ চাইলে স্বাচ্ছন্দে পছন্দের পশুটি কিনতে পারছেন ঘরে বসেই। হাঁটে গিয়ে ভীড়ের বিড়ম্বনা, টাকা ছিনতাইয়ের ভয় আর সময় নষ্টসহ নানাবিধ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে তাই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে গরু কেনা-বেচার অনলাইন হাট।

অনলাইনে গরু বেচা-কেনার মাধ্যমগুলো অর্ডারের মাধ্যমে পছন্দ অনুযায়ী গরু পৌঁছে দিচ্ছেন নির্দিষ্ট ঠিকানায়। টাকা নিয়েও পোহাতে হবে না কোন ঝামেলা। কারণ কার্ড দিয়ে টাকা দেওয়া অথবা ক্যাশ অন ডেলিভারির ব্যবস্থাও রয়েছে।
যেসব অনলাইনের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাচ্ছে কোরবানীর পশু সেগুলো হলো, ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম প্রিয়শপ ডটকম, বেঙ্গলমিট, বিক্রয় ডটকম, আমেরিকান ডেইরি, দেশি মিট, দারাজ, প্রিয়শপ, আমার দেশ আমার গ্রাম প্রভৃতি।

বিক্রয়ডটকমসহ অনলাইনে পশু বিক্রির বিভিন্ন ওয়েবসাইট ঘুরে দেখা গেছে, বিভিন্ন মূল্যের গরুর ছবি দেওয়া রয়েছে। ছবির সঙ্গে দেওয়া আছে, গরুটি কোন জাতের। গরুর গায়ের রং, গরুর উচ্চতা, গরুর ওজন এবং গরুর বয়স। এর পরে লেখা রয়েছে, এছাড়া কেউ চাইলে বাড়ীতে এসে নিজে যাচাই করে নিতে পারবেন। এসব প্রতিষ্ঠানগুলো বিজ্ঞাপনে বলছে,তাদের গরুর বিশেষত্ব হচ্ছে অর্গানিক খাবার খাওয়ানো এবং গৃহ পরিবেশে লালন-পালন করা।

বিক্রয় ডটকম পশু বিক্রি শুরু করে ২০১৫ সাল থেকে। প্রতিষ্ঠানটির বিপণন বিভাগের প্রধান ঈশিতা শারমিন বলেন, আমরা ৫ বছর ধরে অনলাইনে কোরবানির পশু বিক্রি করছি। ক্রেতাদের সাড়া প্রতিবছরই বাড়ছে। এবার ১০ হাজারের বেশি কোরবানির পশু বিক্রির বিজ্ঞাপন রয়েছে আমাদের সাইটে।

শুধু গরু-ছাগল কেনাবেচা নয়, কোরবানি দিয়ে বাড়িতে গোশত পৌঁছে দেওয়া,পশু জবাই ও গোশত কাটার কাজ করার জন্যও কসাইয়েরও খোঁজ দিচ্ছে এসব অনলাইন প্রতিষ্ঠান।